প্রাথমিকের অন্তর্বর্তীকালীন পাঠপরিকল্পনাঃ ২০২১

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের জন্য কোভিড-১৯ সময়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিখন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক (প্রাথমিকের ১ম থেকে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের) বাড়ির কাজ প্রদানে প্রণীত ‘অন্তর্বর্তীকালীন পাঠপরিকল্পনা, ২০২১‘ প্রণয়ন করেছে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি (নেপ)।

আরও দেখুনঃ প্রাথমিকের ১ম থেকে ৫ম শ্রেণির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি (নেপ) অন্তর্বর্তীকালীন পাঠ পরিকল্পনা ২০২১ এর সাথে বেশ কিছু সাধারণ নির্দেশনা ও শিক্ষকের জন্য ব্যবহার নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশিকাসহ ‘অন্তর্বর্তীকালীন পাঠপরিকল্পনা, ২০২১‘  ডেইলি স্টাডি নিউজ ডট কম শিক্ষা বিষয়ক ব্লগ তাঁর পাঠকদের জন্য প্রচারের ব্যবস্থা করেছে, প্রয়োজনে পাঠকরা যাতে সেটি সহজে ডাউনলোড করে নিতে পারে।

সাধারণ নির্দেশনাঃ

১) শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের প্রথম থেকে ক্রমান্বয়ে সকল অনুশীলনীকে বাড়ির কাজ নামে ক্রমিক নম্বর দেওয়া হয়েছে।

২) বাংলা বিষয়ের বাড়ির কাজ করার ক্ষেত্রে কোন বিষয়বস্তু (গল্প, কবিতা, নাটক) বর্ণনা) পড়তে হবে তার নির্দেশনা বাড়ির কাজের সাধারণ তথ্য অংশে উল্লেখ করা হয়েছে।

৩) প্রতি সপ্তাহের জন্য মূল পাঠ পরিকল্পনার ৬ দিনের পাঠ নির্ধারণ করা হয়েছে।

৪) সাপ্তাহিক পরিকল্পনায় শুক্রবারসহ অন্যান্য জাতীয় ছুটির দিন বাদ দিয়ে শ্রেণি কার্যক্রমের দিনগুলোকে তারিখের কলামে উল্লেখ করা হয়েছে।

৫) মূল পাঠ পরিকল্পনা সাময়িক পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত দিনগুলোকে পাঠ দিবস হিসেবে গণ্য করা হয়েছে।

৬) শিখন ঘাটতি পূরণে পূর্বের শ্রেণির আবশ্যকীয় শিখন বিষয়বস্তু শেড দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। শেড দেয়া ঘরের সংযুক্ত পূর্ববর্তী পাঠ বা পাঠ্যাংশ বা অনুশীলঙ্গুলো আগে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে দিতে হবে, তারপর বর্তমান শ্রেণির পাঠ বা পাঠ্যাংশ বা অনুশীলনী শিক্ষক বুঝিয়ে দিবেন।

৭) যে পাঠের সাথে যে বাড়ির কাজ সম্পর্কিত তা শ্রেণি ও নম্বরসহ টেবিলে উল্লেখ করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা সরবরাহকৃত বাড়ীর কাজগুলাে পূরণ করার আগে তাদের পাঠ্যবইয়ে প্রদত্ত অনুশীলনী বা এক্টিভিটিগুলো কলম/ পেন্সিল দিয়ে পূরণ করবে, তারপর ওয়ার্কশীটগুলো পূরণ করবে।

৮) শিখন ঘাটতি পূরণে আগের শ্রেণির পাঠের সঙ্গে সম্পর্কিত বাড়ির কাজ পরবর্তী শ্রেণির বাড়ির কাজের সঙ্গে ক্রমিক নম্বরসহ উল্লেখ করা হয়েছে।

৯) বিদেশি ভাষা হিসেবে ইংরেজি বিষয়ের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের পড়া বাড়ির কাজগুলো করতে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা (পিতা, মাতা, ভাই-বোন) সহায়তা করবেন।

শিক্ষকের জন্য ব্যবহার নির্দেশিকাঃ

১) প্রতি সপ্তাহে নির্দিষ্ট পাঠের বিষয়বস্তু ও সংশ্লিষ্ট বাড়ির কাজ শিক্ষার্থীদের কাছে প্রয়োজনীয় সহায়তা ও নির্দেশনা পৌঁছানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

২) নির্দিষ্ট সময় শেষে শিক্ষার্থীদের শিখন অগ্রগতি যাচাই করবেন ও বাড়ির কাজ সংগ্রহ করে তার ভিত্তিতে “শিক্ষার্থী প্রোফাইল” তৈরি ও সংরক্ষণ করবেন।

৩) অনলাইন শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে পাঠ পরিকল্পনায় নির্দিষ্ট তারিখে নির্ধারিত পাঠ (শিখন ঘটতি পূরণ পরিকল্পনাসহ) উপস্থাপন করবেন। পাঠ উপস্থাপনার সঙ্গে সঙ্গে ওই পাঠের জন্য নির্ধারিত বাড়ির কাজ শিশুদের যথাযথ নির্দেশনাসহ বুঝিয়ে দিবেন।

৪) সকল কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করবেন।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের জন্য (১ম থেকে ৫ম শ্রেণির) অন্তবর্তিকালীন পাঠ পরিকল্পনাঃ

পিডিএফ ডাউনলোড করুন এখানে

এই পাঠপরিকল্পনায় নিম্নবর্ণিত ক্রমে বিষয়সমূহ বিন্যস্ত করা হয়েছে।

১। বাংলা ২। ইংরেজি ৩। প্রাথমিক গণিত ৪। প্রাথমিক বিজ্ঞান ৫। বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় ৬। ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা

৭। হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা ৮। খ্রিস্টধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এবং ৯। বৌদ্ধধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা

Leave a Reply

Your email address will not be published.