প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড ও নির্দেশনা

২০২২ সালের প্রথম ধাপের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী ২২ এপ্রিল সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। এদিন অনুষ্ঠিত ২২টি জেলা/উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রার্থীরা Username এবং Password দিয়ে সবশেষে Submit বাটনে ক্লিক করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবে। প্রার্থীদেরকে অবশ্যই প্রবেশপত্রের রঙিন প্রিন্ট এবং জাতীয় পরিচয়পত্র পরীক্ষার কক্ষে সঙ্গে আনতে হবে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশ পত্র ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে

প্রবেশপত্র ডাউনলোড করার নিয়মঃ

১। প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে উপরের লিংকে ক্লিক করুন

২। এরপর DOWNLOAD ADMIT CARD বাটনে ক্লিক করুন

৩। DOWNLOAD ADMIT CARD BY USER ID/ PASSWORD অথবা DOWNLOAD ADMIT CARD BY SSC ROLL/ BOARD/ YEAR বাটনে ক্লিক করুন।

 ৪। DOWNLOAD ADMIT CARD BY USER ID/ PASSWORD ক্লিক করে User Id: <> Password: <> Captcha Code টাইপ করে DOWNLOAD ADMIT CARD ক্লিক করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করুন।

অথবাঃ DOWNLOAD ADMIT CARD BY SSC ROLL/ BOARD/ YEAR ক্লিক করে SSC Roll No: <> SSC Board: <> Select a board <> SSC Pass Year: >< Captcha Code টাইপ করে DOWNLOAD ADMIT CARD ক্লিক করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করুন।

Username এবং Password হারিয়ে গেলে ফিরে পাওয়ার উপায়ঃ

যদি আপনার Username এবং Password হারিয়ে যায় তাহলে https://dpe.teletalk.com.bd/invoice/ ঠিকানা থেকে তা পুনরুদ্ধার করতে পারবেন। আবেদনের সময়ে প্রদত্ত সঠিক তথ্য দিলে Username এবং Password পুনরায় ফিরে পাওয়া যাবে।

প্রথম ধাপে ২২ এপ্রিল যেসব জেলা-উপজেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবেঃ

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

নিয়োগ পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে আয়োজন প্রার্থীদের জন্য ১৯ দফা নির্দেশনাঃ  

১। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য প্রবেশপত্র ও জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে।

২। পরীক্ষা শুরু হওয়ার এক ঘণ্টা আগে প্রার্থীকে নির্ধারিত আসন গ্রহণ করতে হবে ও পরীক্ষা সমাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত কক্ষ ত্যাগ করতে পারবেন না।

৩। প্রবেশপত্র ছাড়া কোনো পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হবে না। পরীক্ষা কেন্দ্রে কোনো বই, উত্তরপত্র, নোট বা অন্য কোনো কাগজপত্র, ক্যালকুলেটর, মোবাইল ফোন, ভ্যানিটিব্যাগ, পার্স, হাতঘড়ি ও যে কোনো ধরনের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস সঙ্গে নিয়ে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। যদি কোনো পরীক্ষার্থী উল্লিখিত দ্রব্যাদি সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করেন, তাহলে তাকে তাৎক্ষণিক বহিষ্কারসহ তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

৪। পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা কক্ষে অবস্থানকালে অবশ্যই উভয় কান উন্মুক্ত রাখতে হবে।

৫। আবেদনপত্রে পরীক্ষার্থীর দেয়া ছবি হাজিরা শিটে থাকবে ও ইনভিজিলেটর এই ছবি দিয়ে পরীক্ষার্থীকে যাচাই করবেন। ভুয়া পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

৬। আবেদনপত্রে প্রার্থীর দেয়া স্বাক্ষরের সঙ্গে পরীক্ষার হাজিরা শিটে ও ওএমআর শিটে দেয়া স্বাক্ষরসহ সব তথ্যে মিল থাকতে হবে।

৭। পরীক্ষার্থীকে উত্তরপত্রে অবশ্যই কালো বলপয়েন্ট কলম ব্যবহার করতে হবে।

৮। একজন পরীক্ষার্থীর জন্য এএমআার ফরমের সেট কোড পূর্বনির্ধারিত থাকবে, পরীক্ষার্থীর জন্য নির্ধারিত ওএমআর ফরমের সেট কোডটি এ প্রবেশপত্রে উল্লেখ করা আছে।

৯। পরীক্ষার হলে যে ওএমআর ফরমটি দেয়া হবে, সেখানে সেট কোডের ঘরে প্রবেশপত্রে উল্লিখিত কোডটির বিপরীতে বৃত্ত ভরাট করতে হবে।

১০। পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রের সেট কোড ও ওএমআর ফরমের সেট কোড ভিন্ন হবে। পরীক্ষার্থীর ওএমআর সেট কোডের বিপরীতে কোনো সেট কোডের প্রশ্ন পাবেন তা পরীক্ষা শুরু হওয়ার পাঁচ মিনিট আগে কক্ষ পরিদর্শক জানিয়ে দেবেন। পরীক্ষার্থী সঠিক কোডের প্রশ্নটি পেলেন কি না তা নিয়ে নিশ্চিত হবেন।

১১। প্রবেশপত্রে নির্ধারিত ওএমআরের সেট কোড ছাড়া অন্য সেট কোডে পরীক্ষা দিলে উত্তরটি বাতিল বলে গণ্য হবে।

১২। রোল বা সেট কোডের বৃত্ত পূরণে কোনো ভুল হলে উত্তরপত্রটি বাতিল বলে গণ্য হবে।

১৩। হাজিরা শিটের সঠিক স্থানে পরীক্ষার্থীকে স্বাক্ষর করতে হবে ও হাজিরা বৃদ্ধটি পূরণ করতে হবে। তা না হলে উত্তরপত্রটি বাতিল বলে গণ্য হবে।

১৪। ওএমআর ফরমের উপরিভাগের নির্ধারিত সব টেক্সটবক্স নির্দেশনা অনুযায়ী পূরণ করতে হবে, অন্যথায় উদ্ভবপরটি বাতিল বলে গণ্য হবে।

১৫। পরীক্ষা কেন্দ্রের ভেতরে আপনার আসন কোন কক্ষে তার তালিকা টাঙিয়ে দেয়া হবে।

১৬। লিখিত পরীক্ষায় বা মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ চাকরির নিশ্চয়তা প্রদান করে না।

১৭। চূড়ান্ত ফলে প্রতিটি উপজেলা বা শিক্ষা থানার জন্য নিয়োগযোগ্য মেধাতালিকা ব্যতীত কোনো অপেক্ষমান তালিকা বা প্যানেল প্রস্তুত করা হবে না।

১৮। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার নম্বর প্রকাশ করা হবে না।

১৯। পরীক্ষা সব তথ্য অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে বলে নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়েছে।

নিয়মিত চাকরির বিজ্ঞপ্তি সহ শিক্ষা বিষয়ক আপডেট পেতে ডেইলি স্টাডি নিউজ ডট কম শিক্ষা বিষয়ক ব্লগের ফেসবুক পেজ এ লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন।