জি-মেইলে টু স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করবেন কিভাবে

প্রায়ই গুগলের জিমেইল ব্যবহারকারীরা অনলাইন জালিয়াতি বা হ্যাকিংয়ের স্বীকার হন। এক্ষেত্রে প্রযুক্তিবিদরা জিমেইল ব্যবহারকারীদের শক্তিশালী এবং জটিল পাসওয়ার্ড ব্যবহার করার করতে অনুরোধ করছেন। তবে ইউজারদের অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখতে জিমেইলের নিজস্ব কিছু ফিচার রয়েছে, যেগুলো হয়তো আপনাদের একাংশই জানেন আবার অনেকেই জানেন না। এই সিকিউরিটি অপশনগুলোর মধ্যে একটি হল ‘টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন’। এই প্রতিবেদন পড়ে জেনে নিন জিমেইলে টু স্টেপ ভেরিফিকেশন অপশনটি সক্রিয় করার উপায়।

প্রসঙ্গত, অনেকেই টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন এবং টু-স্টেপ অথেন্টিকেশন অপশনদুটিকে গুলিয়ে ফেলেন। তাই আগেই বলে রাখি, টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন এবং টু-স্টেপ অথেন্টিকেশন সিস্টেম অনেকটা একই রকম হলেও এদের মধ্যে কিছুটা পার্থক্য রয়েছে।
ইমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ডের সংমিশ্রণ আপনার জিমেল অ্যাকাউন্টের সুরক্ষার প্রথম ধাপ। কিন্তু টু-স্টেপ ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে আপনি অ্যাকাউন্টের সুরক্ষার একটি অতিরিক্ত অপশন পাবেন। যার ফলে, সাইবার আক্রমণকারীদের পক্ষে আপনার অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস করা বেশ খানিকটা কঠিন হয়ে পড়বে।

কীভাবে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অপশন অন করবেন:

১. টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অন করতে, জিমেইলের বাম দিকে নেভিগেশন প্যানেলে যান এবং সিকিউরিটি অপশনে ক্লিক করুন। ২. গুগল প্যানেলে সাইন-ইন করার পরে, টু-স্টেপ ভেরিফিকেশনে ক্লিক করুন এবং স্ক্রিনে প্রদত্ত পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করুন।

টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অন হওয়ার পর, আপনি যখনই নিজের জিমেইল অ্যাকাউন্টে লগইন করবেন, তখনই আপনার জিমেল অ্যাকাউন্টের সাথে সংযুক্ত ফোন নম্বরে একটি সিকিউরিটি কোড উপস্থিত হবে।এই কোডটি ভয়েস কল, টেক্সট মেসেজ বা গুগল অথেন্টিকেশন অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে আপনার কাছে পাঠাবে গুগল। এই কোডটি এন্টার করলে তবে জিমেইলে লগইন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *