রাবির ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু ৭ মার্চ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন ৭ মার্চ শুরু হবে। আবেদন প্রক্রিয়া চলবে ১৮ মার্চ পর্যন্ত। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের প্রাথমিকভাবে ৫৫ টাকা ফি দিয়ে আবেদন করতে হবে। চূড়ান্ত আবেদন ২৩ মার্চ শুরু হয়ে ৩১ মার্চ পর্যন্ত চলবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে মঙ্গলবার সকালে ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক আজিজুর রহমান জানান, এবার শুধুমাত্র ২০২০ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় পাশ করা শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে। মানবিক (এ), বাণিজ্য (বি) ও বিজ্ঞান (সি) তিনটি ইউনিটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি ইউনিটে ৪৫ হাজার করে মোট ১ লাখ ৩৫ হাজার ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। তিন ইউনিটে মোট নয়টি শিফটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি শিফটে ১৫ হাজার শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেবে। এ শিক্ষাবর্ষে ‘এমসিকিউ’ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ১০০ নম্বরের পরীক্ষায় ৮০টি বহুনির্বাচনি প্রশ্ন থাকবে। প্রতি প্রশ্নের মান হবে ১.২৫ নম্বর এবং পাঁচটি ভুল উত্তরের জন্য এক নম্বর করে কাটা হবে।

আজিজুর রহমান জানান, করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রাথমিক আবেদনে এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা চূড়ান্ত আবেদন করতে পারবে। চূড়ান্ত আবেদনের জন্য ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ১০০ টাকা (চার্জসহ)।

তিনি আরও জানান, ‘এ’ ইউনিটের অধীনে কলা অনুষদ, আইন অনুষদ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ, চারুকলা এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরীক্ষা হবে। ‘বি’ ইউনিটের অধীনে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ এবং ‘সি’ ইউনিটে বিজ্ঞান, জীব ও ভূবিজ্ঞান, কৃষি, প্রকৌশল, ফিশারিজ ও ভেটেরিনারি অনুষদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘এ’ ইউনিটে আবেদনের জন্য এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩.০ করে মোট জিপিএ ৭.০ থাকতে হবে। ‘বি’ ইউনিটে ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ করে মোট জিপিএ ৭.৫০ থাকতে হবে এবং ‘সি’ ইউনিটে ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ করে মোট জিপিএ ৮.০ থাকতে হবে। এ ছাড়া ভর্তি পরীক্ষার চূড়ান্ত তারিখ নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এ বিষয়ে ভর্তি পরীক্ষা উপ-কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানান জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক।সুত্রঃ যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *