ঢাবি’র ভর্তি পরীক্ষা হবে বিভাগীয় শহরে, মানবণ্টনে ফের পরিবর্তন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ (স্নাতক) ভর্তি পরীক্ষায় নম্বর বণ্টনে ফের পরিবর্তন আনা হয়েছে। পাশাপাশি বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক জেনারেল অ্যাডমিশন কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভার একাধিক সদস্য বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সভা সূত্র জানায়, এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ক, খ, গ এবং ঘ এই চারটি ইউনিটে ৪০ নম্বরের এমসিকিউ (বহু নির্বাচনী) এবং ৪০ নম্বরের লিখিত এবং এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ২০ নম্বর করে মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাবি ভর্তি কমিটি। পাশাপাশি, এবারের ভর্তি পরীক্ষা বিভাগীয় শহরগুলোতে অনুষ্ঠিত হবে।

বিগত সময়ের ধারাবাহিকতায় ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় ২০০ নম্বর হলেও এবার পূর্ণমাণ থাকছে ১০০। গত ২০ অক্টোবর ডিনস কমিটির এক বৈঠকে পরীক্ষার মানবণ্টনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। সেখানে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক থেকে রেজাল্টের উপর ৮০ নম্বরের পরিবর্তে ২০ নম্বর করার সিদ্ধান্ত হয়। আর এমসিকিউ নম্বর ৭৫ থেকে ৩০ এবং লিখিত পরীক্ষার নম্বর ৫০ করা হয়। সবমিলিয়ে ১০০ নম্বরের উপর ভর্তিচ্ছুদের মেধাক্রম তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তবে সোমবার অনুষ্ঠিত ডিনস কমিটির এক বৈঠকে প্রশ্নের মানবণ্টনে ফের পরিবর্তন আনা হয়। সেখানে এমসিকিউতে ৪০ এবং লিখিত পরীক্ষার ৪০ নম্বর করার সিদ্ধান্ত হয়। তবে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের স্কোর থেকে ২০ নম্বর নেয়ার বিষয়টি আগের মতোই রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি  পরীক্ষার সমন্বয়ক অধ্যাপক তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী বলেন, এবারের ভর্তি পরীক্ষা বিভাগীয় শহরে নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এমসিকিউ, লিখিত এবং এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের ওপর মোট ১০০ নম্বরের ওপর পরীক্ষা হবে। সময় ও বিষয়ভিত্তিক প্রশ্ন ঠিক করবেন সংশ্লিষ্ট অনুষদের ডিনরা।

তিনি আরো বলেন, সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তির আসন কমানোর বিষয়ে কথা উঠলেও তা নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি বলে জানায় সূত্র।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোর সাথে সমন্বয় না করে বছর বছর আসর বাড়ানোর কারণে সমালোচনার মধ্যে পড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। তবে সামনের দিনগুলোতে ভর্তি পরীক্ষায় আসন বৃদ্ধি না করলেও কমানোর কথা ভাবছে না কর্তৃপক্ষ।

জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ডিনস কমিটির সিদ্ধান্ত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।সুত্রঃনয়াদিগন্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *